অশ্রু আর ভালোবাসায় বিদায় ড. রহীম

আগস্ট ২৫, ২০১৬ ০১:০৮:পূর্বাহ্ণ

ইমাম মোকাররম হোসাইন (লন্ডন খেকে):
বিশ্ব স্রস্টার বাণী(كل نفس ذائقة الموة) পৃথিবীতে আসা যাওয়ার এ চিরন্তন রীতির বাহিরে কেউ নয়। নশ্বর পৃথিবীতে অবিনশ্বর কীর্তি স্থাপন করতে পারার মধ্য দিয়ে ব্যক্তি তাঁকে চিরঞ্জীব করতে পারে, সৃস্ট কর্মের মাধ্যমে জগতে স্থায়ী আবাসন তৈরী করতে পারে।
৭০ এর দশকে ইউকে তে আগত জনাব মাওলানা আব্দুর রহীম সাহেব তাঁর ব্যক্তিগত যোগ্যতা দিয়ে ব্রিটিশ সমাজে নিজেকে সফলতার স্বর্ণ শিখরে অধিষ্ঠিত করতে সক্ষম হলেন। ব্রিটিশ সমাজে মুসলিমদের স্বকীয়তা রক্ষা কল্পে তার স্ব-উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত ইসলামিক কালচারাল সেন্টার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দ্বারা তিনি নিজেকে অবিনশ্বর করলেন। যতদিন সভ্য দুনিয়া থাকবে, যতদিন উনার প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠান গুলো থাকবে ততদিন মাওলানা আব্দুর রহীম সাহেব মানুষের অন্তরে থাকবেন।
২৩ শে আগস্ট ২০১৬। বার্মিংহাম ইসলামিক সেন্টার প্রস্তুত তার কর্তাকে বিদায় জানাতে। চারিদিকে শূন্যতা,নিরবতা। বিদায় জানাতে ইউকে’র বিভিন্ন শহর থেকে আগত হাজারো আগন্তুক। সময় যখন বারটা তখন মসজিদ কাঁনায় কাঁনায় পূর্ণ। জনতা পাশের বিশাল মাঠে সারি বদ্ধ ভাবে অপেক্ষমান বেলা ২:৩০ এর জন্য । জোহরের নামাজ শেষ করে শুরু হল বিদায়ী আনুষ্ঠানিকতা। ইসলামিক সেন্টার তাঁদের নতুন অভিভাবক নির্বাচন করার পর চলতে থাকল একে একে অশ্রুসিক্ত বক্তৃতা। বক্তাদের আবেগ তাড়িত বক্তব্যে কাঁদতে থাকলেন উপস্থিত হাজারো জনতা। স্থানীয় সংসদ সদস্য ফেইথ গ্রুপের সেক্রেটারী ভিন্ন ধর্মী হওয়া সত্বেও অশ্রু মাখা বক্তব্যে আপ্লুত উপস্থিত সবায়।
ইউকে’র বিভিন্ন শহর থেকে আগত হাজারো মানুষের গগন বিদায়ী আমিন আমিন শব্দে প্রকম্পিত মসজিদ সেন্টার এবং পার্শ্ববর্তী এলাকা। হাজারো মানুষের উপস্হিতিতে জানাজায় ইমামতি করেন মরহুমের বড ছেলে জনার হাফেজ সোহেল।
জানাজার পরে মরহুমের মরদেহ নিয়ে যাওঁযা হয় পার্শ্ববর্তী কবর স্থানে। আমরাও অন্যদের মত পিছু নিয়ে সামনে এগিয়ে যাই। দাফন কাফন সম্পন্ন করার পর আমরা কবর জিয়ারত করে আর একবার উনার মাগফেরাতের জন্য অশ্রু সিক্ত প্রার্থনা করি।
কমিউনিটির সেবায় মাওলানা ড. আব্দুর রহীমের অবদান অধিক। লন্ডনের মেইন স্টিম মিডিয়া আইটিভি ড. রহীমকে নিয়ে বিশেষ অনুষ্ঠান প্রচার করেন। এছাড়াও কমিউনিটির মিডিয়া গুলো তার মৃত্য ও জানাযার খবর গুরুত্ব দিয়ে প্রকাশ করে।
বাংলাদেশ সহ সারা পৃথিবীতে তার শুভাকাঙ্গীদের শোকের মাতম। মরহুমের রূহের মাগফেরাত কামনা করছেন দেশী বিদেশী হাজার হাজার শুভাকাঙ্গী। আল্লাহ মরহুম কে জান্নাতুল ফেরদাউস নসীব করুক। আমীন।

Related Post