এক মাসে কোম্পানীগঞ্জে ১৬ ডাকাতি : রামপুরে ২ ডাকাত আটক

ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৭ ০৯:০২:পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় রামপুর ইউনিয়নের প্রবাসীর বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় দুই ডাকাত এলাকাবাসী আটক করে পুলিশে দেয়। রোববার গভীর রাতে ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডে প্রবাসী ওমর গাজীর বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, রামপুর ইউনিয়নে প্রবাসী ওমর গাজীর বাড়ীতে রাতে ২০-৩০ জনের ডাকাতদল বিল্ডিংয়ের কলাপসিবল গেট ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে পরিবারের সবাইকে জিম্মি করে হাত-পা বেঁধে ফেলে। এ সময় ডাকাত দল ঘরের আলমিরার তালা ভেঙ্গে নগদ ৬০ হাজার টাকা, ১০ ভরি স্বর্ণলংকার, ৫টি মুঠোফোন ও মূল্যবান ব্যবহারী সামগ্রীসহ ৭ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

রাতেই স্থানীয় এলাকাবাসী ওই এলাকা ঘেরাও করে ডাকাত সন্দেহে ২ জনকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে আহত করে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনার স্থলে গিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। আটক ডাকাতরা হল, ফেনী জেলার সোনাগাজি থানার পশ্চিম চরদরবেশ গ্রামের মফিজের বাড়ির আমির আহাম্মদের ছেলে মোঃ রাসেল প্রকাশ কম্পিউটার রাসেল (২৫) ও রামপুর ৫নং ওয়ার্ডের আটঘরিয়া এলাকার লম্বা সৈয়দের বাড়ির মোঃ আজিজের ছেলে মোঃ ইসমাইল হোসেন জিয়া (২৭)।

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ মোঃ ফজলে রাব্বী জানান, ডাকাত কম্পিউটার রাসেল ও জিয়ার বিরুদ্ধে থানায় ৫টি ডাকাতির মামলা রয়েছে। কম্পিউটার রাসেল কিছুদিন আগে কারাগারে ছিল। গত কয়েক দিন আগে সে জামিনে বেরিয়ে আসে। জামিনে আসার পর এলাকায় আবার ডাকাতি শুরু করে।
গত এক মাসে কোম্পানীগঞ্জে ১৬টি ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। গত সাপ্তাহে কোম্পানীগঞ্জের দক্ষিণ মুছাপুরে চৌধুরী বাজারে এক রাতে ৬ টি দোকানে ডাকাতি ঘটনা ঘটেছে।

Related Post