কোম্পানীগঞ্জে সেফটি ট্যাংকে ৩ জনের মৃত্য

অক্টোবর ২৭, ২০১৫ ০৪:১০:পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের চরকাঁকড়া ইউনিয়নের নতুন বাজারে নির্মাণ কাজ করার সময় সেফটি ট্যাংকের বিষক্রিয়ায় ৩ নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনায় আরো এক শ্রমিক আহত হয়েছেন।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ৭নং ওয়ার্ড নূর মিয়া মেস্ত্রী বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হচ্ছেন একই গ্রামের মোঃ মোস্তফার ছেলে আবদুল আলিম বাবুল (৩৫), শেখ আহম্মদের ছেলে রফিক (৩৪) ও মফিজুল হকের ছেলে জাফর (৩৫) এবং আহত হলেন শেখ আহম্মদের অপর ছেলে মোঃ জাফর।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে নূর মিয়া মিস্ত্রী বাড়ীর নূর মিয়ার ঘরের সামনে প্রায় ৮/৯ মাস আগে নির্মিত একটি সেফটি ট্যাংকের সেন্টারিং খোলার কাজ করছিল কয়েকজন নির্মাণ শ্রমিক। এসময় ট্যাংকের উপরে থাকা প্লেটটি সরিয়ে ভেতরে প্রবেশ করে শ্রমিক জাফর। দীর্ঘ সময় পরও তাকে বের হতে না দেখে রফিক ও বাবুল নামের আরো দুই শ্রমিক ট্যাংকের ভেতরে প্রবেশ করে। পরে তাদেরকে ট্যাংকের ভেতরে ছটফট করতে দেখে স্থানীয়রা ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহত অবস্থায় ৪জনকে উদ্ধার কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিন শ্রমিককে মৃত ঘোষণা করেন।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে’এর ডিউটি অফিসার ডা. সেলিম জানান, ট্যাংকের ভিতরে জমে থাকা পানির কারণে সৃষ্ট মিথাইন গ্যাসের বিষক্রিয়া তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল মজিদ জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Related Post