কোম্পানীগঞ্জ সমিতির নির্বাচন: মালেক-সবুজ পরিষদ প্রচারণায় এগিয়ে

আগস্ট ০৪, ২০১৬ ১২:০৮:অপরাহ্ণ

নঈম উদ্দিন: প্রবাসের অন্যতম আঞ্চলিক সংগঠন নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ সমিতির আসন্ন ২৫ সেপ্টেম্বরের নির্বাচনে মালেক-সবুজ পরিষদ গন সংযোগ এবং মতবিনিময় সভা এবং ভোটারদের কাছে কাছে গিয়ে নিজেদের প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে। দুই প্যানেলের নির্বাচন হলে ও প্রচারনায় মোটামুটি সুবিধা জনক অবস্থাতে আছে মালেক-সবুজ পরিষদ।
প্রার্থী মনোনয়নের ক্ষেত্রে গত নির্বাচিত প্যানেলের একটা বড় অংশ বর্তমান প্যানেলে ভোট করার পাশা পাশি গত দুই বারের নির্বাচিত বর্তমান কমিটির সভাপতি সেক্রেটারী সমর্থন জানিয়ে যাচ্ছে মালেক-সবুজ পরিষদকে।
অন্যদিকে আরজু-করিম পরিষদের অনেক প্রার্থী নতুন মুখ হওয়ায় অনেক বেশী পরিশ্রম করে ভোটারদের কাছে পৌঁছতে হবে। আরজু হাজারী গত নির্বাচনে সেক্রেটারী হিসাবে ভোট করে পরাজিত হয়েছিলেন। আর তার প্যানেলে নতুন কিছু অপরিচিত মুখ থাকায় নির্বাচনে অনেকটা সুবিধাজনক অবস্থাতে আছে তার বিপরীতে মালেক-সবুজ পরিষদ।
অন্যদিকে বর্তমান কমিটির বিগত দিনের কার্যক্রম সমিতির নির্বাচনে দারুন প্রভাব ফেলবে বলে মনে করেন মালেক-সবুজ পরিষদের কর্তা ব্যক্তিরা।

উল্লেখ্য বর্তমান বাবুল-লিটন পরিষদ ভোটে জিতার পরে ও দুই বৎসর ক্ষমতা নিতে পারেনি আগের কমিটির কাছ থেকে। আর আগের কমিটির লোকেরা এখনো সমিতির প্রায় ৭০-৮০ হাজার টাকা জমা দিতে পারেনি। তাদের কে বারবার সময় দেয়ার পর ও এই টাকা জমা দিতে তারা ব্যর্থ হয়। অপরদিকে বর্তমান কমিটি সব সাধারণ সভাতে তাদের অডিট রিপোর্টসহ সমিতির যাবতীয় কার্যক্রমের হিসাব দিয়েছেন সদস্যদের কাছে। এতে সাধারণ ভোটাররা বর্তমান কমিটির উপর সন্তুষ্ট।
বর্তমান কমিটি মেয়াদ পূর্তির পর ক্ষমতা আকড়ে না থেকে ন্তুন নির্বাচন দেয়া, সমিতির তহবিলে চার লক্ষ ডলারের ক্যাশ জমা, সমিতিকে নন প্রপিট করা, সমিতির জন্য কবরের জায়গা কিনা সহ নানা বিধ বিষয়ে তাদের সাফল্য তুলে ধরে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। সমিতির আগামী দিনের কমিটি যেন তাদের সাফল্য ধরে রাখতে পারে সেই জন্য মালেক-সবুজ পরিষদের প্রতি তাদের সমর্থন জানিয়ে ভোটারদের নিকট ভোট চাচ্ছে।
উল্লেখ্য প্রবাসের আঞ্চলিক সমিতি গুলোর মধ্যে কোম্পানীগঞ্জ সমিতির নির্বাচন অন্যতম ব্যায় বহুল ও আলোচিত নির্বাচন। প্রায় দুই হাজার ভোটার রয়েছে সমিতিতে। এই নির্বাচন কে সামনে রেখে খুবই সরব কোম্পানীগঞ্জের প্রবাসীরা।

Related Post