দুই শ বছর ধরে নোয়াখালীর ৭ গ্রামে একদিন আগে ঈদ পালন

জুলাই ০৬, ২০১৬ ০৯:০৭:অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দুই শ বছর ধরে একদিন আগে ঈদুল ফিতর পালন করেছে নোয়াখালীর ৭ টি গ্রাম। সকাল সাড়ে ১০টায় সময় ৩টি মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করা হয়। বেগমগঞ্জ উপজেলার গোপালপুর ইউপির বসন্তেরবাগ গ্রামের মুন্সি বাড়ী জামে মসজিদ, জিরতলী ইউপির ফাজিলপুর গ্রামে দায়রা বাড়ী দরজায়মসজিদ ঈদের একটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। স্থানীয়রা অনুসারীদের দাবী, চট্রগ্রামের সাতকানিয়ার মির্জাখিল দরবার শরীফ (চাঁদ টুপি) পীর সাহেবের অনুসারি হয়ে বিগত ২‘শ বছর ধরে এভাবে আগাম ঈদ পালন করে আসছে। একইভাবে চাঁদপুরের কয়েকটি গ্রামেও ঈদ পালন করা হয়।

অগ্রিম ঈদ পালন করার ব্যাপারে প্রচলিত ধারণা হচ্ছে, অবিভক্ত নোয়াখালীর রসিদপুর গ্রামে মাওলানা আবদুল হামিদ ১৯২৫ সালে মত প্রচার করেন হানাফী, মালেকী,হাম্বলী মাজহাব মতামতের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিশ্বের সকল দেশে একই দিনে ঈদুল ফিতর, ঈদুল আযহা, রমজান, শবেবরাত, শবে মেরাজ ও শবেকদর প্রভৃতি পালিত হবে।

অপরদিকে কারো কারো মতে, লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার কালাকোপ গ্রামের পীর সাহেব মাওলানা আবদুল কাইয়ুমের আদেশ অনুসারে ভক্তরা দীর্ঘদিন ধরে আরব বিশ্বের সময়ানুযায়ী ঈদ পালন করে আসছে।

ঈদ কে ঘিরে বেগমগঞ্জ উপজেলার উত্তর বসন্তেরবাগ সরকারী প্রাথমিক মাঠে বসেছে শিশুকিশোরদের ঈদ মেলা। বিভিন্ন সামগ্রীর পশরা সাজিয়ে বসেছে দোকানীরা। এছাড়া জেলার সদর উপজেলার কালিতারা, জয়কৃষ্ণপুর, অশ্বদিয়া, পশ্চিম মহাদেবপুর উল্লেখযোগ্য।

Related Post