নিজ জেলার সড়কের অবস্থা দেখে কাদেরের অসন্তুষ্টি

জুলাই ১৮, ২০১৫ ১০:০৭:অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঈদের দিন পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের নিজ জেলা নোয়াখালীর জেলার রাস্তা ঘাটের অবস্থা দেখে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন।  সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ও সরকারি কর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের  সিদ্ধান্ত নেন তাৎক্ষণিক।

শনিবার বিকালে নোয়াখালীতে আসেন মন্ত্রী। তিনি দেখেন সেখানে নির্মাণাধীন চৌমুহনী-ফেনী চার লেনের সড়ক ভেঙে একাকার। অথচ  সড়কটির প্রায় ৬০ শতাংশ কাজ শেষ। হতাশ মন্ত্রী কাজের গুণগত মান খারাপের জন্য সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কাজ বাতিলের সিদ্ধান্ত দেন।

একই সঙ্গে কুমিল্লার সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী জুনায়েদ আহমেদ শিবিব, নোয়াখালী সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. শাহ নেওয়াজ, নোয়াখালীর নির্বাহী প্রকৌশলী নূরনবী তরফদার ও ফেনীর নির্বাহী প্রকৌশলী এনামুল হককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন। এ নির্দেশ ঈদুল ফিতরের কারণে আগামীকাল থেকে কার্যকর হবে বলে মন্ত্রী জানান।

এ ছাড়া আগামী সাত দিনের মধ্যে সড়ক যানবাহনের চলাচলের উপযোগী করতে না পারলে নোয়াখালী ও ফেনীর নির্বাহী প্রকৌশলীকে বরখাস্তের নির্দেশ দেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, “আমার সড়ক-মন্ত্রিত্বের অভিজ্ঞতায় এসে নোয়াখালীর রাস্তাঘাটের মতো এত বেহাল দশা আর কোথাও দেখি নাই।” তিনি নিজ জেলায় রাস্তাঘাটের দুরবস্থার জন্য জনগণের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেন।

মন্ত্রী বলেন, লোকজনের যাতায়াতের সুবিধার্থে তিনি এবং মন্ত্রণালয়ের সচিব থেকে শুরু করে সবাই ঈদের দিন তিন ঘণ্টা ছুটি ভোগ করেছেন।

কোম্পানীগঞ্জের মন্ত্রীর ঈদের শুভেচ্ছা: সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের নিজ নির্বাচনী এলাকা কোম্পানীগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় জনসাধরণের সঙ্গে শুভেচছা বিনিময় করেছেন। এসময় মন্ত্রীর সঙ্গে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল ও নিউইয়র্ক আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আইয়ুব আলীসহ নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Related Post