নোয়াখালীতে আওয়ামী লীগ নেতা সেলিম হত্যা মামলায় বিএনপি নেতা কারাগারে

অক্টোবর ১৫, ২০১৫ ০৪:১০:অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক কোষাধ্যক্ষ ইউসুফ আলী সেলিম হত্যা মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি জামাল উদ্দিন ভূইয়াকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

বুধবার দুপুরে নোয়াখালী সদর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে বিচারক সমরেশ শীল আসামীর জামিন নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। জামাল উদ্দিন বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ওই ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, জামাল উদ্দিন ভূইয়া আওয়ামী লীগ নেতা ও আন্তঃজেলা বাস মালিক সমিতির সভাপতি ইউসুফ আলী সেলিম ওরফে নিশাত সেলিম হত্যা মামলায় চার্জশীটভুক্ত ২৫ নম্বর আসামী। এ ছাড়া সুধারাম ও বেগমগঞ্জ থানার আরও তিনটি মামলার আসামী তিনি।

বুধবার সেলিম হত্যা মামলাসহ অপরাপর মামলাগুলোতেও তিনি আদালতে জামিনের আবেদন করেন। আদালত জামিনের আবেদন শুনানী শেষে জামিন নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, জামাল উদ্দিন এ হত্যা মামলার চার্জশীটভুক্ত ২৫ নং আসামী। তার বিরুদ্ধে সুধারাম ও বেগমগঞ্জ থানায় আরো ৩টি মামলা রয়েছে। এসব মামলায় তিনি ওয়ারেন্টভুক্ত। তিনি পলাতক ছিলেন।

উল্লেখ: ২০১৪ সালের ২৭ জুলাই রোববার ইউসুফ আলী সেলিম ঈদের যাকাত বিতরণ শেষে তাঁর গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলার চরশাহী ইউনিয়নের তিতারকান্দি থেকে মোটরসাইকেল যোগে নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীর বাসায় আসছিলেন। রাত প্রায় সাড়ে ৯টার দিকে পথিমধ্যে নোয়াখালী সদর উপজেলার চরমটুয়া ইউনিয়নের মহতাপুর এলাকায় দুর্বৃত্তরা তাকে আটক করে গলা কেটে ফেলে যায়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে আনার পথে তিনি মারা যান। এ ঘটনার চারদিন পর নিহত সেলিমের স্ত্রী কোহিনুর বেগম বাদী হয়ে ২৭ জনকে এজাহারভুক্ত আসামী করে সুধারাম থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে পুলিশ তদন্ত শেষে ৪৩জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। জামাল উদ্দিন ওই মামলার চার্জশীটভুক্ত ২৫নং আসামী। জামাল উদ্দিন ছাড়াও এ পর্যন্ত ওই মামলায় পুলিশ ১৩জন আসামীকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করে। তারা প্রত্যেকে বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছে।

তবে স্থানীয় বিএনপি অভিযোগ করে আসছে, আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলে খুন হয়েছেন ইউসুফ আলী সেলিম। সরকার বিরোধী শক্তিকে দমনের হাতিয়ার এবং আওয়ামী সন্ত্রাসীদের অপরাধ আড়াল করতেই বিএনপি নেতাদের ফাঁসানো হয়েছে।

Related Post