ফেনীতে অস্ত্রসহ যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

জুলাই ১০, ২০১৫ ০৭:০৭:পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
ফেনীতে অস্ত্র, কার্তুজ ও বুলেটপ্রুফ প্লেটসহ যুবলীগ কর্মী ও চিহ্নিত সন্ত্রাসী মো. মোরশেদ আলমকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। 
 
বুধবার সকালে সদর উপজেলার শর্শদী ইউনিয়ন উত্তর খান গ্রামের আবুল খায়েরের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে একটি দেশীয় তৈরী ওয়ান শুটারগান, পাঁচ রাউন্ড কার্তুজ, দুটি বুটেলপ্রুফ প্লেট, একটি দেশীয় তৈরী কুড়াল উদ্ধার করা হয়। 
 
র‌্যাব-৭ (সিপিসি-১) ফেনী ক্যাম্পের পরিচালক মেজর মো. মোজাম্মেল হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার সকালে সদর উপজেলার শর্শদী ইউনিয়ন উত্তর খান গ্রামের আবুল খায়েরের বাড়িতে অভিযান চালায় র‌্যাব। এসময় এলাকার চিহৃত সন্ত্রাসী ও ওই বাড়ির আবুল খায়ের ছেলে মো. মোরশেদ আলমকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে তার ঘর তল্লাশি করে একটি দেশীয় তৈরী ওয়ান শুটারগান, পাঁচ রাউন্ড কার্তুজ, দুটি বুটেলপ্রুফ প্লেট ও একটি দেশীয় তৈরী কুড়াল উদ্ধার করে র‌্যাব।
 
র‌্যাব আরো জানায়, সন্ত্রাসী মোরশেদ আলম এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ছাড়াও মাদক সেবন, মাদক ব্যবসা, ছিনতাই ও চাঁদাবাজীর সাথে ওতপ্রত ভাবে জড়িত ছিলো। তার বাহিনী বিপুল পরিমান অবৈধ অস্ত্র ব্যবহার করে ফেনী-কুমিল্লার সীমান্তবর্তী এলাকায় নিয়মিত নাশকতা ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপ পরিচালনা করতো। তার বিরুদ্ধে ফেনী মডেল থানায় দুটি মামলা রয়েছে। অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় র‌্যাব তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে ফেনী মডেল থানায় হস্তান্তর করেছে।
 
জেলা যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক শুসেন চন্দ্র শীল জানান, মোরশেদ আলম যুবলীগের কোন স্তরের পদে নেই। সে এলাকায় শুধুই সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত। তবে সন্ত্রাসী মো. মোরশেদ আলম সম্প্রতি শর্শদী ইউনিয়ন যুবলীগের হয়ে যাওয়া কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিলো
 

Related Post