বসুরহাট রেস্টুরেন্ট থেকে ডেটিংয়ের সময় ৭ প্রেমিক যুগল আটক

আগস্ট ২৩, ২০১৬ ১২:০৮:পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাটের দুইটি চাইনিজ রেস্টুরেন্ট থেকে ৭ জোড়া প্রেমিক যুগলকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে সাজা প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার দুপুরে বসুরহাট বাজারের ফ্যান্টাসী ফুড ও ফুড ফেয়ার চাইনিজ রেস্টেুরেন্ট ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে ১৪ জন তরুণ-তরুণীকে আটক করে।
জানা যায়, বসুরহাট পৌরসভা শহরে অবস্থিত ফ্যান্টাসী ফুড চাইনিজ ও ফুড ফেয়ার চাইনিজ রেস্টুরেন্টে ভ্রম্যমাণ আদালত দুপুরে অভিযান চালিয়ে ডেটিং অবস্থায় আটক করা হয়।
পরে বিকেল সাড়ে ৫টায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন প্রতি তরুণ-তরুণীকে ২০০ টাকা করে জরিমানা করে অভিভাবকের হাতে তুলে দেয়।
এ সময় চাইনিজ রেস্টুরেন্ট ফুড ফেয়ারকে সর্তক করে দিয়ে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে। অপর ফ্যান্টাসী ফুডের বিরুদ্ধে মামলা দেয়ার জন্য আদালত পুলিশকে নির্দেশ দেন।
আটককৃতরা হলো, ফ্যান্টাসী ফুড থেকে চরএলাহী ইউনিয়েনের মো. হারুন, চরকঁকড়া ইউনিয়নের ফয়সাল মাহমুদ, চরহাজারী ইউনিয়নের মো. রায়হান, চরপার্বতী ইউনিয়নের ইমরান হোসেন, ফুড ফেয়ার চাইনিজ থেকে মোহাম্মদ নগরের পারভেজ, কবিরহাট উপজেলার ঘোষবাগ এলাকার মোরশেদ, চরপার্বতী ইউনিয়নের মো. টিটু। মেয়েদের মধ্যে ২ জন সরকারি মুজিব কলেজের ছাত্রী ৫ জন বহিরাগত।
অভিযোগ রয়েছে, শুধু স্কুল বা কলেজে অ্যায়নরত শিক্ষার্থীরাই নয়। বসুরহাটের অনেক প্রবাসীদের স্ত্রীরাও তাদের প্রেমিক নিয়ে অনেক সময় রেস্টুরেন্টে পরকীয়ায় মত্ত থাকতে দেখা যায়। অনেকে এ পরিস্থিতিতে বিব্রত অবস্থায় পড়তে দেখা যায়।
স্কুল কলেজের ক্লাস চলাকালীন অবস্থায়ও রেস্টুরেন্টসহ কোম্পানীগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে প্রেমিক যুগলকে ডেটিং করতে দেখা যায়। এসব ঘটনাকে সামাজিক অবক্ষয় বলে মনে করেন সমাজকর্মী আরীফ হোসাইন। তিনি মনে করেন, পরিবার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থীরা যথেষ্ট সহযোগীতা পাচ্ছেননা। দিন দিন প্রতিষ্ঠানিক কেন্দ্রীক বিনোধন খেলা-ধূলা কমে যাচ্ছে। একইসঙ্গে পরিবার থেকে কোয়ালিটি টাইমও পাচ্ছে না সন্তানরা। এছাড়াও পরিবার থেকে ধর্মীয় শিক্ষার গুরুত্ব কম দেয়া হচ্ছে। এতে তরুন তরুনীরা বিপরীত লিঙ্গের প্রতি অল্প বয়সে বেশী আকর্ষণ অনুভব করছে, যার জন্য পড়া লেখা বা ক্রিয়েটিভ কাজ থেকে দূরে সরে যাচ্ছে।

Related Post