লক্ষ্মীপুরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

জুন ১২, ২০১৫ ০৩:০৬:অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
লক্ষ্মীপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এমরান হোসেন নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা। রোববার দিবাগত রাতে সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জের শেখপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত এমরান হোসেন একই উপজেলার পূর্ব রাজাপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।
চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন কবির, জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে এমরানকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় সোমবার দুপুরে চন্দ্রগঞ্জ থানায় বাবলুকে প্রধান আসামি করে নিহতের পিতা নুরুল ইসলাম একটি মামলা করেছেন।
এলাকাবাসী জানায়,শেখপুর গ্রামের আকবর হোসেনের সাথে একই গ্রামের বাবলু মিয়ার সাথে বাড়ীর পাশে একটি জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দু-পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। রোববার সন্ধ্যায় এমরান হোসেন শ্বশুর আকবর হোসেনের বাড়িতে বেড়াতে আসে। জমি সংকান্ত বিরোধের জের ধরে রাত সাড়ে ১১ টার দিকে বাবলুর নেতৃত্বে ৮/১০জনের একদল সন্ত্রাসী এমরান হোসেনকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে যায়। এর পর শ্বশুরবাড়ির পাশে একটি ফসল উত্তোলিত সমির মাঠে এমরান হোসেনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায় তারা। পরে তাকে মূূমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে রাত ২টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন।
ইমরানের স্ত্রী পুস্প আক্তার জানান,গত কয়েকদিন আগেও জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে এমরান হোসেনকে মারধর করে বাবলুসহ তার লোকজন। নিহত এমরান হোসেন এক সন্তানের জনক।হত্যাকারিদের দ্রুত গ্রেফতার  ও শাস্তির দাবী করেন পুস্প।
নিহতের ভাই সাইফুল ইসলাম জানান,রোববার সন্ধ্যায় নিজ বাড়ি থেকে এমরান হোসেন শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যায়। রাতে বাবলু,রাসেল,সবুজ,.মামুন ও রাজুর নেতৃত্বে ৮/১০জনের একদল সন্ত্রাসী এমরান হোসেনকে শ্বশুর বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করে।

Related Post