সোনাগাজীতে ইয়াবা পরিবার

জুলাই ১৪, ২০১৫ ০৭:০৭:অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফেনীর সোনাগাজীতে আওয়ামী লীগ নেতা রহমত উল্যাহ, তার স্ত্রী ও দুই ছেলের পর ভাতিজা সাইফুল ইসলামকে (২৬) দুইশত ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনার পর থেকে সোনাগাজীতে রহমত উল্যাহ’র পরিবারকে ইয়াবা পরিবার হিসেবে ডাকে।

রোববার মধ্যরাতে উপজেলার জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এর দুই দিন আগে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রহমত উল্যাহ ইয়াবা ও গাঁজাসহ গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। 

সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নবীর হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ রোববার মধ্যরাতে সোনাগাজী পৌরসভার জিরো পয়েন্টে অভিযান চালায়। এসময় সোনাগাজীর উপজেলার চর চান্দিয়া ইউনিয়নের উত্তর চর চান্দিয়া গ্রামের আবদুর রহিমের ছেলে সাইফুল ইসলামকে আটক করে। পরে তার দেহ তল্লাশি করে পুলিশ দুইশত পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে। 

পুলিশ জানায়, আটককৃত সাইফুল ইসলাম গত ১০ জুলাই শুক্রবার রাতে পুলিশের হাতে পরিমান মাদকসহ গ্রেপ্তার হওয়া মাদক সম্্রাট ও চর চান্দিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রহমত উল্যাহ ভাতিজা। স্থানীয় ভাবে ছাত্রলীগ কর্মী হিসেবে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করে সোমবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ আরো জানায়, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে র‌্যাব-৭ এর একটি দল সাইফুল ইসলামের জেঠা আওয়ামী লীগ নেতা রহমত উল্যাহ বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান মাদকসহ রহমত উল্যাহ’র বড় ছেলে শাহাদাত হোসেন জুয়েলকে আটক করে। পরের মাস মার্চে পুলিশ ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান মাদকসহ ছোট রহমত উল্যাহ’র ছেলে শাখাওয়াত হোসেন জাভেদকে আটক করে। এর পরের মাস এপ্রিলে পুলিশ আবারও ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান মাদকসহ রহমত উল্যাহর স্ত্রী লাভলী আক্তারকে চার সহযোগীসহ আটক করে। গত ১০ জুলাই রহমত উল্যাহ’র বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মাদক সম্্রাট রহমত উল্যাহকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতরা সকলে মাদক মামলায় ফেনী কারাগারে বন্দি রয়েছে। 

Related Post